হোম ভিডিও বার্তা আমাদের রুপসী বাংলাদেশ

আমাদের রুপসী বাংলাদেশ

54
0
রুপসী বাংলাদেশ

ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইলের অনন্ত প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এক অপরূপ লীলাভূমি আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশ। প্রকৃতির সৌন্দর্যের আলোক ছটায় বাংলাদেশ পৃথিবীর মানচিত্রে আপন আলোর চির ভাস্বর। পাহাড়-পর্বত, জলপ্রপাত, সমতল ভূমি, সমুদ্র সৈকত কি নেই এই রূপসী বাংলায়।প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের আধার বাংলাদেশ। সবুজ শ্যামলিমায় ভরপুর বাংলাদেশ যেন কোনো দক্ষ কারুশিল্পীর হাতের ছোঁয়ায় এক অনাবিল সৌন্দর্যের লীলাক্ষেত্র। এ দেশে রয়েছে পাহাড়, পর্বত, বিস্তৃর্ণ সমভূমি, রয়েছে পৃথিবীর সর্ববৃহৎ সমুদ্র সৈকত। এই দেশের পটুয়াখালী জেলার কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত থেকে উপভোগ করা যায় সূর্যাস্তের দৃশ্য দেখার মতো এক অপার্থিব সৌন্দর্য। পৃথিবীর সর্ববৃহৎ ম্যানোগ্রোভ বন সুন্দরবন বাংলাদেশের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অবিচ্ছেদ্য অংশ। এদেশের অনুপম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য চিরকাল ধরে মুগ্ধ কবিচিত্তে কাব্যস্রোত বইয়ে দিয়েছে। ভাবুকের হৃদয়ে কাব্যসুধাময় ভাবের যোগান দিয়েছে বাংলার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। বাংলার যে দিকে যে প্রান্তেই চোখ রাখা হোক না কেনো এর নয়নাভিরাম সৌন্দর্য আমাদের মনে প্রশান্তি আনে। মন-প্রাণ ভরে উঠে এর অনাবিল সৌন্দর্য অবলোকন করে। পাহাড় টিলার রমনীয় শোভা, গাছপালা তৃণভূমি শোভিত বনের মনোরম দৃশ্য, নদ-নদীর অপরূপ সৌন্দর্য, শোভাময় ফসলের ক্ষেত সবই আমাদের হৃদয়ে আনন্দের স্রোতে ধারা বইয়ে দেয়। বাংলাদেশ নদীমাতৃক দেশ। নদী বাংলাদেশের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের বৈচিত্র্যময় আধার। ঋতু বৈচিত্র্যের কারণে বাংলাদেশের নদীগুলোর মধ্যেও সৌন্দর্যের বৈচিত্র্য লক্ষ করা যায়। বর্ষাকালে উত্তাল ঢেউ ভয়ঙ্কর রূপধারণ করে আর শীতকালে নদী থাকে প্রশান্ত। এ সকল নদী বাংলার আবাদী জমি করেছে শস্য শ্যামলা ও অপরূপ সৌন্দের্যের অধিকারী।রূপসী বাংলার অনাবিল সৌন্দর্য এতই মনোমুগ্ধকর যে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর মুগ্ধ হয়ে কবিতায় বলেছেন- “সার্থক জন্ম আমার জন্মেছি এই দেশে/ সার্থক জনম মাগো তোমায় ভালোবেসে।” রূপসী বাংলা প্রকৃতিতে নিজেকে সমর্পিত করে, বাংলাদেশের রূপ বৈচিত্র্যে মুগ্ধ হয়ে হাজারো পর্যটকের ভিড় জমে এ দেশে। এক এক জায়গায় এক এক রূপ বৈচিত্র্য নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে বাংলাদেশ। যা সত্যিই অপূর্ব, অতুলনীয় এবং অসাধারণ।