হোম স্বাস্থ্য ‘স্যার, দয়া করে নার্সদের চেয়ার-টেবিলে নার্সদের বসিয়ে দেন’

‘স্যার, দয়া করে নার্সদের চেয়ার-টেবিলে নার্সদের বসিয়ে দেন’

7
0
‘স্যার, দয়া করে নার্সদের চেয়ার-টেবিলে নার্সদের বসিয়ে দেন’

বিটিএন২৪ রিপোর্ট: পরিচালক ও লাইন ডিরেক্টরসহ নার্সিং অ্যান্ড মিডওয়াইফারি অধিদফতরের ঊর্ধ্বতন সকল কর্মকর্তার পদে যোগ্যতাসম্পন্ন নার্সদের নিয়োগদানের দাবি জানিয়েছেন নার্স নেতারা। তারা স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেককে অনুরোধ জানিয়ে বলেন, ‘স্যার দয়া করে নার্সদের চেয়ার-টেবিলে নার্সদের বসিয়ে দেন। যোগ্যতাসম্পন্ন নার্সরা অধিদফতরে থাকলে কারিগরি শিক্ষাবোর্ড নিয়ে যে জটিলতার সৃষ্টি হয়েছে তা হত না।’

বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে নার্স নেতারা এ দাবি জানান। কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের নার্সিং কোর্সকে স্বীকৃতি প্রদানের দাবি নিয়ে সৃষ্ট জটিলতাকে কেন্দ্র করে বিবাদমান সমস্যা নিয়ে গতকাল বুধবার (২৩ অক্টোবর) স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও স্বাস্থ্যসচিব (শিক্ষা ও চিকিৎসা) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আলোচনা করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গ্রহণযোগ্য সমাধান খুঁজে বের করতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে দায়িত্ব প্রদান করেন।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর আজ বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) দুপুরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নার্সিং সেক্টরের বিভিন্ন স্টেকহোল্ডার-নার্সিং অ্যান্ড মিডওয়াইফারি অধিদফতর, নার্সিং অ্যান্ড মিডওয়াইফারি কাউন্সিল্সহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং নার্স নেতৃবৃন্দের নিয়ে এক বৈঠক ডাকেন।

বৈঠকে কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের মাধ্যমে পরিচালিত নার্সিং কোর্সের স্বীকৃতি প্রদানের দাবিতে উচ্চ আদালতে চলমান মামলা, মামলার কারণে লাইসেন্সিং ও কম্প্রিহেনসিভ পরীক্ষা বন্ধ থাকাসহ বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে সকলের মতামত ও বক্তব্য শুনেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। সভায় অংশগ্রহণকারী নার্স নেতারা জানান, স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও স্বাস্থ্য সচিব মনোযোগ দিয়ে তাদের কথা শুনেন ও নার্সিং সেক্টরের বিরাজমান সমস্যা সমাধানে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালাবেন।

জানা গেছে, কারিগরি বোর্ড নিয়ে সৃষ্ট জটিলতার সমস্যা নিরসনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে দাফতরিক সকল ধরনের নথিপত্র যোগান দেয়ার জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও নার্সিং কর্মকর্তা ও নার্স নেতাদের সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠনের কথা বলেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

বাংলাদেশে নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন (বিএনএ) কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইসমত আরা পারভীনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও স্বাস্থ্য সচিবসহ সকলেই কারিগরিসহ নার্সিং সেক্টরের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে আন্তরিকতা প্রকাশ করে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালাবেন।তিনিসহ নার্স নেতারা খোলামেলা কথাবার্তা বলতে পেরে খুশি।

স্বাধীনতা নার্সেস পরিষদ (স্বানাপ) কেন্দ্রীয় কমিটির মহাসচিব ইকবাল হোসেন সবুজ জানান, নার্সিং সেক্টরের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে তারা আজ মন খুলে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় ও স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে স্বাস্থ্য সেক্টরের যে উন্নীত সাধিত হচ্ছে তার পেছনে নার্সদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও এ কথা সত্য যে উচ্চতর ডিগ্রি ও যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও নার্সিং অ্যান্ড মিডওয়াইফারি অধিদফতরের পরিচালক ওলাইন ডিরেক্টরের বিভিন্ন পদে নার্সরা নিয়োগ পাচ্ছে না। আজ ওই সকল পদে নার্সরা থাকলে কারিগরি নিয়ে যে জটিলতার সৃষ্টি হয়েছে তা হত না।

বিভিন্ন কর্মকর্তার এসব পদে কোয়ালিফাইড নার্সদের নিয়োগপ্রদান, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের নার্সিং কাউন্সিলের স্বীকৃতি প্রদান সংক্রান্ত মামলার অবসান, লাইসেন্সিং ও কম্প্রিহেনসিভ পরীক্ষা গ্রহণ সংক্রান্ত জটিলতা দ্রুত নিরসনের অনুরোধ জানান তিনি।