হোম আরও বার্তা গীবত পরনিন্দা জঘন্যতম অপরাধ

গীবত পরনিন্দা জঘন্যতম অপরাধ

5
0
গীবত পরনিন্দা জঘন্যতম অপরাধ

মুফতী মোহাম্মদ এনামুল হাসানঃ গীবত ও পরনিন্দা জঘন্যতম অপরাধ। জঘন্যতম অপরাধ হওয়া সত্বে ও  তা আজ আমাদের নিকট এক মহামারি আকার ধারণ করেছে।মানুষে মানুষে হিংসা গীবত পরনিন্দার ফলে আজ অশান্তি বিরাজ করছে সর্বত্র।
আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কোরআনে,  বিশ্বনবী মোহাম্মদ ( সা:) হাদিস শরিফে গীবত ও পরনিন্দাকারীদের ব্যাপারে কঠোর ভৎসনা করেছেন।গীবত ও পরনিন্দার জঘন্যতা বর্ণনা করতে গিয়ে আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কোরআনে  গীবতকারীকে আপন ভাইয়ের মৃত দেহের গোশত ভক্ষণকারীর সাথে তুলনা করেছেন।

আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কোরআন শরীফে এরশাদ করেন, তোমাদের কেউ যেন কারো পশ্চাতে নিন্দা না করে।তোমাদের কেউ কি তার মৃত ভাইয়ের গোশত ভক্ষণ করা পছন্দ করবে? বস্তুত তোমরা একে ঘৃণা ই কর।( সুরা হুজরাত:১২)।

হাদিস শরিফে আল্লাহর রাসুল মোহাম্মদ ( সা:) এরশাদ করেছেন, তোমরা কারো প্রতি কেউ হিংসা করো না,পরস্পর শত্রুতা ও বিদ্বেষ পোষণ করো না, কারো দোষত্রুটি খোঁজার পাছনে পড়ো না এবং পরস্পর বিচ্ছেদমূলক আচরণ করো না।


হাদিস শরীফে আরো এরশাদ হয়েছে, গীবত করা থেকে তোমরা বেচে থাকো। কেননা গীবত ব্যভিচারের চাইতে ও জঘন্য। কারণ হলো ব্যভিচারী আল্লাহর কাছে তওবা করলে আল্লাহ তা ক্ষমা করে দিতে পারেন,কিন্তু গীবতকারীকে যে পর্যন্ত গীবতকৃত বান্দাহ ক্ষমা না করবে  আল্লাহ তায়ালা ও গীবতকারীকে ক্ষমা করবেননা।
হজরত আনাস ( রা:) বর্ননা করেন, রাসুল( সা:) এরশাদ করেন,মিরাজের রজনীতে আমি এমন কিছু লোকের নিকট দিয়ে যাচ্ছিলাম, যারা বিরাটকায় ধারালো নখের দ্বারা নিজেদের মুখমণ্ডল মারাত্মকভাবে কাটতে ছিল। জিব্রাইল( আ:)কে আমি জিজ্ঞেস করলাম এরা কারা? জিব্রাইল ( আ:) বললেন, এরা দুনিয়াতে মানুষের গীবত ও পরনিন্দা করতো, আর মানুষের ইজ্জত সম্মান নষ্ট করার কাজে লেগে থাকতো।
অন্য এক হাদিসে হজরত আবু দারদা( রা:) হতে বর্নীত আছে, রাসুল( সা:) বলেছেন, যদি কেউ অন্য যেকোন ব্যক্তির বিরুদ্ধে দুনিয়াতে তাকে হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে কোন অপপ্রচার করে, আল্লাহ তায়ালা কিয়ামতের দিন তাকে অবশ্যই দোযখে নিক্ষেপ করে হেয় করবেন।
আল্লাহতায়ালা আমাদের সকলকে উল্লেখিত সকল অপরাধ থেকে মুক্ত থেকে আদর্শ মানুষ হওয়ার তৌফিক দান করুণ। আমিন।
লেখক যুগ্ম সম্পাদক ইসলামী ঐক্যজোটব্রাক্ষণবাড়ীয়া জেলা।