হোম আনন্দ ইমান রক্ষায় অভিনয় ছেড়ে দেয়া জায়রাকে সহ্য হচ্ছে না তসলিমার

ইমান রক্ষায় অভিনয় ছেড়ে দেয়া জায়রাকে সহ্য হচ্ছে না তসলিমার

18
ইমান রক্ষায় অভিনয় ছেড়ে দেয়া জায়রাকে সহ্য হচ্ছে না তসলিমার
ইমান রক্ষায় অভিনয় ছেড়ে দেয়া জায়রাকে সহ্য হচ্ছে না তসলিমার

বিটিএন২৪ রিপোর্ট: ইসলাম ধর্মের একজন অনুসারী হিসেবে অভিনয় করা বলতে গেলে ধর্মের বিরুদ্ধাচরণ। তাইতো ইমান রক্ষায় অভিনয় ছেড়ে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ‘দঙ্গল’ অভিনেত্রী জায়রা ওয়াসিম। তবে এভাবে তার অভিনয় ছেড়ে দেয়াকে মন থেকে মেনে নিতে পারছেন না নির্বাসিত বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

বেশ কয়েকটি টুইট করে জায়রাকে পুরুষতান্ত্রিক সমাজ ও ধর্মের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের বার্তা দিয়েছেন তিনি। টুইটবার্তায় তিনি লিখেছেন, ‘প্রতিভাবান জায়রা অভিনয় ছেড়ে দিতে চায় শুনেই গায়ে কাঁটা দিচ্ছে। ওর মনে হয় অভিনয় করলে আল্লার প্রতি বিশ্বাস ভঙ্গ হবে। অত্যন্ত বোকা বোকা সিদ্ধান্ত এটা। ধর্ম চিরকালই নারীদের বিরুদ্ধে চলে। এমন অনেক প্রতিভা চাপা পড়ে যায় বোরকার নিচে। কোনো নারীর এমন ধর্মে বিশ্বাস করাই উচিত নয়, যা তার প্রতি বিরূপ। ধর্ম, পুরুষতন্ত্র, স্ত্রী-বিদ্বেষের বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে। এই বিষয়গুলোই নারীদের বেঁধে রেখেছে। সাম্যের জন্য মহিলা ও পুরুষ উভয়কেই সুর চড়াতে হবে।’

ধর্মের কারণে জায়রার অভিনয় ছাড়ার সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাতেও রাজি নন তসলিমা। তার ভাষ্য, পুরুষতান্ত্রিক সমাজের কাজই হলো নারীদের মগজধোলাই করে এই সব ধারণা মাথায় ঢুকিয়ে দেয়া। অশিক্ষিত, পরনির্ভরশীল, যৌন চাহিদা মেটানো আর সন্তান তৈরির যন্ত্র হিসেবেই দেখা হয় নারীদের। তাদের কোনো স্বাধীনতা দেয়া হয় না।’

জায়রা যেভাবে বলিউড থেকে সরে দাঁড়ালেন, তা খুব একটা ভালো লাগেনি অভিনেত্রী রবিনা টন্ডনেরও। তার মতে, জায়রা এমন সিদ্ধান্ত নিতেই পারেন। কিন্তু অভিনয় ছাড়ার জন্য কাউকে দায়ী করা উচিত হয়নি। আরও বিনম্রভাবে বিদায় নিতে পারতেন তিনি।

বলিউড সুপারস্টার আমির খানের ‘দঙ্গল’ সিনেমায় অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন জায়রা ওয়াসিম। এই সিনেমায় আমিরের মেয়ের চরিত্রে দেখা গিয়েছিল তাকে। সিনেমাটি তাকে আমিরের মেয়ে হিসেবে আলাদা পরিচিতিও এনে দিয়েছিল।

পাঁচ বছরের অভিনয় ক্যারিয়ারের পাঠ চুকিয়ে অভিনয়কে এবার ‘টাটা বাইবাই’ জানালেন জায়রা! ঈমান নষ্ট হয়ে যাচ্ছে এমন যুক্তি দিয়ে অভিনয় ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন ১৮ বছর বছরের মুসলিম এই অভিনেত্রী।

অভিনয় ছাড়ার কারণ জানিয়ে আজ রোববার টুইটারে জায়রা ওয়াসিম লিখেছেন, ‘পাঁচ বছর আগে নেওয়া সিদ্ধান্ত আমার জীবনকে বদলে দিয়েছিল। বলিউডে পা রাখার পর তুমুল জনপ্রিয়তা পাই। কিন্তু এই জগৎটা আমাকে ক্রমশ অবমাননার দিকে ঠেলে দিয়েছে, ক্রমশ অসচেতনভাবে আমি আমার ঈমান (বিশ্বাস) থেকে বেরিয়ে এসেছি।

কারণ আমি এমন একটা পরিবেশে কাজ করতাম যা ক্রমাগত আমার ঈমানের মাঝে বাঁধা হয়ে দাঁড়াত, ধর্মের সঙ্গে আমার সম্পর্ক বিপন্ন হয়ে পড়েছিল।’

জায়রা তার পোস্টে আরও বলেন, ‘কোরআনের ঐশ্বরিক জ্ঞানের মধ্যে আমি তৃপ্তি এবং শান্তি খুঁজে পেয়েছি। প্রকৃতপক্ষে হৃদয় তার সৃষ্টিকর্তার জ্ঞান, তার গুণাবলি, তার করুণা এবং তার আদেশের জ্ঞান অর্জনে শান্তি পায়। আমি মনে করি খ্যাতি, সম্পদ যে পর্যায়ে পৌঁছে যাক না কেন, তাতে যেন কখনও শান্তি এবং নিজের বিশ্বাস না হারিয়ে যায়।’

বছর পাঁচেক আগে বলিউডে পা রেখেছিলেন জায়রা। ‘দঙ্গল’ ছবি দিয়ে বলিউডে পা রেখেই দর্শকদের মন জয় করেছিলেন। আমির খানের সঙ্গে দ্বিতীয়বার জুটি বেঁধে উপহার দিয়েছিলেন ‘সিক্রেট সুপারস্টার’। শান্ত, সৌম্য, মিষ্টি, শিশুসুলভ হাসিতে বলিপাড়ার অনেকেরই প্রিয়পাত্রী হয়ে উঠেছিলেন এই কাশ্মীরী কন্যা। দুটো ছবিতেই বাগিয়ে নিয়েছিলেন জাতীয় পুরস্কার। ‘দ্য স্কাই ইজ পিংক’ ছবিতে ফারহান আখতার এবং প্রিয়াঙ্কা চোপড়া জোনাসের সঙ্গে স্ক্রিন ভাগ করে নিতে দেখা যাবে তাকে।

জায়রার এমন সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন ‘দঙ্গল’ পরিচালক নীতেশ তিওয়ারি। তিনি বলেন, ‘বিষয়টা জানার পর হতভম্ব হয়ে গিয়েছিলাম। এটা একেবারেই প্রত্যাশিত ছিল না। তবে ওর জীবন, ওর সিদ্ধান্ত নেয়ার পূর্ণ অধিকার রয়েছে। তবে নিঃসন্দেহে ইন্ডাস্ট্রি একজন ভালো অভিনেত্রীকে হারাল।’

জায়রার সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেছেন জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাও। কিন্তু বছর আঠারোর অভিনেত্রীর অভিনয় ছাড়ার কারণটা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না লেখিকা তসলিমা।

একটি উত্তর ত্যাগ

অনুগ্রহ করে মন্তব্য করুন
অনুগ্রহ করে আপনার নাম প্রবেশ করুন